প্যারাসিটামল এর কাজ কি এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতটুকু?

প্যারাসিটামল এর কাজ কি এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতটুকু?

জ্বর বা ব্যথা উপশমের জন্য আমাদের দেশে প্যারাসিটামল সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানি এটিকে বিভিন্ন নামে বাজারজাত করে। জ্বর ও ব্যথার ওষুধ প্যারাসিটামল এর কাজ কি এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতটুকু এ সম্পর্কে আমাদের জ্ঞানের পরিধি বাড়ালে সবাই উপকৃত হবে।

প্যারাসিটামল মাথাব্যথা, জ্বর, মাইগ্রেন, দাঁত ব্যথা, পেশী ব্যথার জন্য খুবই উপকারী। কিন্তু যদি অতিরিক্ত খাওয়া হয়, লিভারের কার্যকারিতা ব্যাহত হয়, এমনকি গ্যাস্ট্রিকের সমস্যাও হতে পারে। প্যারাসিটামল মূলত কাজ করে প্রোস্টাগ্ল্যান্ডিন তৈরীতে বাঁধা দানের মাধ্যমে এবং এটি শরীরকে শীতল করে।

বয়স অনুযায়ী প্যারাসিটামল সেবনের মাত্রা ও নিয়ম-

সব ঔষধেই পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আছে, তাই বলে ওষুধ খাওয়া থেকে বিরত থাকা সম্ভব নয়। অতএব, প্রয়োজন হলে, একটি পরিমিত পরিমাণ মেনেই ঔষধ গ্রহণ করা উচিত। প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য প্যারাসিটামলের ডোজ ৫০০ মিলিগ্রাম ট্যাবলেট ১ টি, এবং কখনও কখনও প্রয়োজন হলে ২ টি খাওয়া যেতে পারে। ২৪ ঘন্টার মধ্যে ৮ টি বা ৪০০০ মিলিগ্রামের বেশি খাবেন না।

প্যারাসিটামল এর কাজ কি এবং এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কতটুকু?
medex

বাচ্চাদের ক্ষেত্রে বয়স ও ওজন অনুযায়ী প্যারাসিটামল সিরাপ দিতে হবে। শিশুর শরীরে যদি জ্বর ১০১ ফারেনহাইটের বেশি হলেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সুপারিশ করে যে প্যারাসিটামল ব্যবহার করুন। ২০১০ সাল পর্যন্ত, এটা ভাবা হয়েছিল যে প্যারাসিটামল গর্ভবতী মায়েদের জন্য নিরাপদ। সম্প্রতি, ইউএস ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন প্যারাসিটামল সহ কোডিন ব্যবহারে সতর্কতা অবলম্বন করতে বলেছে। কারণ এটি কিছুক্ষেত্রে মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ায়।

কিছু বিজ্ঞানী রিপোর্ট করেছেন যে, প্যারাসিটামলের সাথে ক্যাফিন গ্রহণ করলে শরীরে টক্সিনের সংখ্যা বৃদ্ধি পায় এবং লিভারের ক্ষতি হয়। প্যারাসিটামল বা ব্যথানাশক ওষুধ যতটা সম্ভব ব্যবহার করা উচিত নয় যেসব রোগীদের-

– গর্ভাবস্থায় আছেন যারা

– যেসব মায়েরা তাদের বাচ্চাদের বুকের দুধ খাওয়ান

– যদি আপনি রক্ত ​​পাতলা হওয়ার চিকিৎসা করেন

– যদি আপনার গ্যাস্ট্রিক আলসার বা পেপটিক আলসার থাকে

চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ সেবন করা উচিত। নিজেদের স্বাস্থ্যে ভালো রাখার জন্য আমাদের অনেক দায়িত্ব রয়েছে। অতএব, স্ব-নির্বাচিত ওষুধ গ্রহণের সময় সতর্ক থাকুন।

রেফারেন্সঃ

shajgoj.com

ekushey-tv.com

prothomalo.com

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url