আসুন দেখে নেই ঘরেই কিভাবে তৈরি করবেন সুস্বাদু ক্ষীর পাটিসাপটা পিঠা

আসুন দেখে নেই ঘরেই কিভাবে তৈরি করবেন সুস্বাদু ক্ষীর পাটিসাপটা পিঠা

শীতকালে পিঠা খেতে সত্যিই অনেক মজা। আবহমান বাংলার নিজস্ব ঐতিহ্যের সঙ্গে পিঠা-পুলির সম্পর্ক যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। এলাকার পার্থক্যের কারণে আমাদের দেশের গ্রামগুলোতে পিঠাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে এক অনন্য স্বতন্ত্র সংস্কৃতি! শুধু গ্রামাঞ্চলেই নয়, শহরেও পিঠার জনপ্রিয়তা দিন দিন বাড়ছে। পাটিসাপটা পিঠা আমাদের সকলেরই অনেক প্রিয়। আজ আমি খুব সহজে মজাদার ক্ষীর পাটিসাপটা পিঠা বানানোর রেসিপি শেয়ার করব।

ক্ষীর পাটিসাপটা পিঠা কিভাবে তৈরি করতে হয়?

আমরা সবাই জানি কিভাবে এই পিঠা বানাতে হয়। যারা রান্নায় নতুন এবং সহজ উপায়ে ক্ষীরসা দিয়ে পাটিসাপটা বানাতে চান তাদের জন্য এই রেসিপিটি খুবই সহায়ক হবে। পাটিসাপটা পিঠা তৈরি করা যায় নানাভাবে। অনেকে খেজুরের গুড় দিয়ে, কেউ নারকেল দিয়ে, কেউ আবার গুঁড়ো দুধ ও সুজি দিয়ে পুর বানায়। পাটিসাপটার মূল মজাটি আসে ভেতরের পুর বা ক্ষীর থেকে। ক্ষীর যদি সুস্বাদু হয়, তবে পিঠার টেস্টও একদম পারফেক্ট হবে। আসুন তাহলে কথা না বাড়িয়ে উপকরনগুলো দেখে নেই।

উপকরণগুলো কী কী?

ক্ষীর তৈরি করতে যা যা লাগবে-

তরল দুধ – ৫০০ মি.লি.
গুঁড়ো দুধ – ২ টেবিল চামচ
চিনি – ১/২ কাপ
এলাচ গুঁড়া- পরিমানমতো
সুজি- ২ চা চামচ

পিঠা তৈরি করতে যা যা লাগবে-

চালের গুঁড়া- ১ কাপ
ময়দা – ১/২ কাপ
গুঁড়ো দুধ – ২ চা চামচ
চিনি – ৩ টেবিল চামচ
লবণ – ১ চিমটি

ক্ষীর পাটিসাপটা কিভাবে বানাবেন?

১) প্রথমে তরল দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করুন। এবার দুধে চিনি ও সুজি মিশিয়ে নাড়তে থাকুন।

২) এটিতে গুঁড়ো দুধ যোগ করলে একটি খুব সুন্দর ক্রিমি টেক্সচার দেয় এবং স্বাদ খুব ভালো হয়। গুঁড়ো দুধ মেশান এবং ভালোভাবে নাড়ুন যাতে কোনও দলা পাকিয়ে না যায়।

৩) ঘন হয়ে এলে দুধে সামান্য এলাচ গুঁড়ো ছড়িয়ে দিন। হ্যাঁ, পাটিসাপটার পুর এখন প্রস্তুত।

৪) এবার একটি বড় বাটি নিন এবং এতে ময়দা, চালের গুঁড়া, দুধের গুঁড়া, চিনি, সামান্য লবণ মিশিয়ে নিন।

৫) ব্যাটার তৈরি করার জন্য পর্যাপ্ত জল যোগ করুন। গোলা খুব ঘন হবে না, আবার অনেক পাতলাও হবে না।

৬) তারপর একটি ননস্টিক সসপ্যান বা প্যান গরম করুন এবং ঘি দিয়ে ব্রাশ করুন। গোল চামচের সাহায্যে প্যানে পিঠার ব্যাটার দিন।

৭) প্যানের হাতল ধরে চারপাশে ছড়িয়ে দিন, এটি গোল রুটির মতো আকৃতি হবে।

৮) এবার পিঠাকে এক কোণে ক্ষীরসা দিয়ে সাবধানে ভাঁজ করুন। চুলার আঁচ খুব কম রাখুন।

৯) পিঠা উল্টেপাল্টে ভেজে নিয়ে তুলে ফেলুন। এভাবে একে একে পিঠা তৈরি করুন।

তাহলে দেখলেন তো, খুব অল্প সময়েই অল্প উপকরণ দিয়েই তৈরি করা যায় দারুণ স্বাদের ক্ষীর পাটিসাপটা পিঠা! চিনির বদলে গুড় দিয়েও তৈরি করতে পারেন। অতিথি আপ্যায়নেও এই পিঠার কোন জুড়ি নেই। শীতের পিঠার মজা উপভোগ করুন তাহলে আজই।

রেফারেন্সঃ-

shajgoj.com

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url