সামরিক জাদুঘর

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর কোথায় ও সময়সূচি কি | টিকেট ফি কত?

সামরিক যাদুঘর পরিচিতি

সামরিক জাদুঘর যার পুরো নাম বঙ্গবন্ধু সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘর। ঢাকার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত, বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর শহরের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক স্থান। জাদুঘরটির নামকরণ করা হয়েছে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে। মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচিহ্ন সম্বলিত এই ঐতিহাসিক জাদুঘরটি ২০২২ সালের ৬ জানুয়ারি পুনর্গঠন করা হয়। রাজধানীর বিজয় সরণিতে বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটারের ঠিক পাশেই এই ঐতিহাসিক জাদুঘরটি অবস্থিত। জাদুঘরটি ১৯৯৬ সালে স্থাপিত হয়েছিল এবং এতে বাংলাদেশীদের দ্বারা ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের সাথে সম্পর্কিত নিদর্শন এবং প্রদর্শনী রয়েছে। এছাড়াও এখানে মহান মুক্তিযুদ্ধে ব্যবহৃত বেশ কিছু অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম রয়েছে।

মিলিটারি মিউজিয়ামের সময়সূচী

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘর প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা এবং বিকেল ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকে। তবে প্রতি শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টা থেকে বঙ্গবন্ধুর জীবনের ওপর একটি তথ্যচিত্র দেখানো হয়। জাদুঘরের সাপ্তাহিক বন্ধের দিন বুধবার।

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের সময়সূচী

গ্রীষ্মকালীন সময়: গ্রীষ্মকালে, বঙ্গবন্ধু সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘর সকাল ৯:৩০ টা থেকে বিকাল ১:০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে, শুক্রবার এবং বুধবার ছাড়া। আর প্রদর্শনীর প্রধান দরজা বিকেলের শিফটে ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। তবে ৬:৩০ টা থেকে পানির ফোয়ারার কাছে বিশেষ প্রদর্শনী শুরু হয়।
 
শীতের সময়: শীতকালে, জাদুঘরটি সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ১ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বিকেলের শিফটে ৩টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। তবে প্রতি শুক্রবার সন্ধ্যা বিকাল ৬.১৫ থেকে ৩০ মিনিটের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে একটি সুন্দর তথ্যচিত্র দেখানো হয়।
সামরিক জাদুঘর

 

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের বন্ধের দিন?

রাজধানীর বিজয় সরণিতে (মিলিটারি মিউজিয়াম) সামরিক জাদুঘর সরকারি ছুটির দিন এবং সাপ্তাহিক বুধবার বন্ধ থাকে। এছাড়া, প্রদর্শনী কার্যক্রম প্রতিদিন দুটি (০২) শিফটে চলতে থাকে। একটি সকাল ১০ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত, অন্যটি বিকাল ৩ টা থেকে ৬ টা পর্যন্ত। তবে প্রতি শুক্রবার প্রদর্শনীর পরে আপনি একটি বিনামূল্যে ৩০ মিনিটের তথ্যচিত্র উপভোগ করতে পারেন যা ৬:৩০ টা থেকে শুরু হয়।
 
বাংলাদেশ ইতিহাস ও সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ একটি আকর্ষণীয় একটি দেশ। দেশের অন্যতম প্রধান ও গুরুত্বপূর্ণ স্থান এখন বঙ্গবন্ধু সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘর। এটি ঢাকা সেনানিবাস এলাকার বিজয় সরণিতে অবস্থিত যা ২০২২ সালে একটি নতুন আঙ্গিকে খোলা হয়েছিল। এই জাদুঘরটি দেশের সামরিক ইতিহাসের একটি প্রাণবন্ত অন্তর্দৃষ্টি প্রদান করে, যেখানে মুক্তিযুদ্ধের সবচেয়ে আইকনিক ব্যক্তিত্বদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

সামরিক জাদুঘর কোথায় অবস্থিত?

রাজধানী ঢাকার প্রাণকেন্দ্র বিজয় সরণিতে অবস্থিত, বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরটি বাংলাদেশের ইতিহাসে আগ্রহী যে কেউ অবশ্যই দেখতে হবে। এর পূর্বে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, পশ্চিমে সংসদ ভবন ও জিয়া উদ্যান, উত্তরে আগারগাঁও এবং দক্ষিণে ফার্মগেট রয়েছে। আপনি বাংলাদেশের যেকোনো স্থান থেকে এবং ঢাকার যেকোনো স্থান থেকে জাদুঘরটি দেখতে পারেন। জাদুঘরটি দেশের সামরিক ইতিহাস এবং স্বাধীনতার সংগ্রামের একটি অনন্য অন্তর্দৃষ্টি প্রদান করে।
যাত্রার স্থান আসার উপায়
গাবতলি/ সাভার গাবতলি ৮ নং বাস, নিউ ভিসন সহ মিরপুর এর কিছু বাসে করে প্রথমে খামারবাড়ি কিংবা ফার্মগেট নামতে হবে। সেখান থেকে পায়ে হেটে ৩-৫ মিনিট লাগবে।
রামপুরা/ বাড্ডা সরাসরি আসতে হলে আলিফ বাসে বা আপনি অন্যান্য বাসও পেয়ে যাবেন।
নারায়ণগঞ্জ সরাসরি আসতে হলে হিমাচল পরিবহন অথবা মেঘলা পরিবহন বাসে করে শাহবাগ অথবা কলাবাগান নেমে ফার্মগেট অভিমুখি সকল বাস।
এয়ারপোর্ট/ উত্তরা বিকাশ পরিবহন বা আপনি অন্যান্য বাসও পেয়ে যাবেন।
মোহাম্মদপুর লেগুনা করে খামারবাড়ি আসবেন আসাদ গেট হয়ে সংসদ ভবনের সামনে দিয়ে। তারপর পায়ে হেটে অথবা রিক্সায়।
নিউ মার্কেট/ ধানমন্ডি বিকাশ পরিবহন বাসে সরাসরি। তবে চাইলে মিরপুর মেট্রো বাসে আসা যাবে বা আপনি অন্যান্য বাসও পেয়ে যাবেন।
কমলাপুর/ মালিবাগ আয়াত পরিবহন বাসে সরাসরি বা আপনি অন্যান্য বাসও পেয়ে যাবেন।

মিলিটারি মিউজিয়াম এ প্রবেশের ফি?

আগে সামরিক জাদুঘরে প্রবেশ মূল্য ছিল ৫০ টাকা, সার্কভুক্ত দেশগুলোর দর্শনার্থীদের জন্য ১০০ টাকা এবং বিদেশি দর্শনার্থীদের জন্য ২০০ টাকা। তবে বর্তমানে বাংলাদেশ সরকার প্রায় সব জাদুঘরের প্রবেশ ফিসহ খরচ বাড়িয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এই সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘরের প্রবেশমূল্য বাড়িয়ে ১০০ টাকা ধার্য করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের টিকিট

Musium Register
সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘরে প্রবেশমূল্য আগে ৫০ টাকা থাকলেও এখন তা বাড়িয়ে ১০০ টাকা ধার্য করা হয়েছে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য। এছাড়া সার্কভুক্ত দেশগুলোর দর্শনার্থীদের জন্য ফি ধার্য করা হয়েছে ৩০০ টাকা এবং সব বিদেশি দর্শনার্থীর জন্য ৫০০ টাকা। অনলাইনে টিকিট বুক করতে https://bangabandhumilitarymuseum.com দেখুন। আপনার যদি কোনো অ্যাকাউন্ট না থাকে, তাহলে আপনাকে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। একাউন্ট করতে একদমই সহজ, ফোন নাম্বার দিয়েই করতে পারবেন এই একাউন্ট।

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের অনলাইন টিকিট

Musium Login
অনলাইনে বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের টিকিট কিনতে প্রথমে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://bangabandhumilitarymuseum.com এ যান। তারপর বাই টিকেট অপশনে ক্লিক করুন এবং অনলাইনে টিকিট কিনতে মোবাইল নম্বর ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করুন। এবং টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা বিকাশ, নগদ বা অন্য কোনো ব্যাংক থেকে দেওয়া যাবে।

বঙ্গবন্ধু সামরিক জাদুঘরের অনলাইন টিকিট

বঙ্গবন্ধু সামরিক (মিলিটারি মিউজিয়াম) জাদুঘর (বিএমএম) একটি আকর্ষণীয় স্থান যা বাংলাদেশের সামরিক ইতিহাস ও ঐতিহ্য থেকে বিভিন্ন ধরনের নিদর্শন প্রদর্শন করে। জাদুঘরটিতে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় অবস্থিত এবং অতীত ও বর্তমান ট্যাঙ্ক, ইউনিফর্ম, আর্টিলারি এবং অন্যান্য সামরিক সরঞ্জামের বিশাল সংগ্রহ রয়েছে।

Similar Posts