শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য আবেদন লিখুন বিদ্যালয়ের শিক্ষককে।

শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য

আমরা সবাই জানি ছাত্রজীবনে আবেদনপত্র/দরখাস্ত লেখার গুরুত্ব অপরিসীম। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য দরখাস্ত লিখতে হয় মাঝেমধ্যেই? আর এজন্যই তো আমরা অনেকে অনলাইনে দরখাস্ত এর বিভিন্ন ফরম্যাট বিষয়ে ধারনা পেতে চেষ্টা করেন। আজকের এই পোষ্টটি তাদের জন্যই উপস্থাপন করলাম, আর আপনি এমন আরও অনেক দরখাস্তের ফরম্যাট পেতে আমাদের গুগল নিউজ ফলো করতে পারেন।

শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য আবেদন লেখার সঠিক নিয়ম?

  • তারিখটি প্রথমে পৃষ্ঠার উপরের বাম দিকে লিখতে হবে। (উদাহরণস্বরূপ, তারিখ: ০৬-০২-২০..)
  • তারিখের সাথে, নীচে প্রাপকের নাম/পদবী লিখুন। (যেমন, আবেদনপত্র লেখা ব্যক্তির নাম/পদবী)
  • তারপর প্রাপক বা প্রতিষ্ঠানের সঠিক ঠিকানা টাইপ করুন।
  • পরবর্তী, সংক্ষেপে অ্যাপ্লিকেশনের মূল বিষয়বস্তু।
  • পরবর্তী, আপনাকে অবশ্যই একটি ব্যাখ্যা সহ অনুরোধের কারণগুলি স্পষ্টভাবে উল্লেখ করতে হবে। এখানে আপনি মূল বিষয়বস্তু উল্লেখ করবেন।
  • সম্পূর্ণ বিবরণের শেষে, নীচে “বিনীত নিবেদক” শব্দগুলি লিখুন এবং স্পষ্টভাবে আপনার নাম এবং ঠিকানা লিখুন।
  • আবেদনটি অবশ্যই একটি খামে ঢুকিয়ে প্রাপকের কাছে পাঠাতে হবে।

বাংলায় শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য আবেদন লেখার নিয়ম

  • আবেদনপত্র/দরখাস্ত সর্বদা এক পৃষ্ঠায় লিখতে হবে।
  • আবেদনপত্র/দরখাস্ত লেখার পাতায় কোন মার্জিন দেয়া যাবে না। (এটি আবেদনপত্র/দরখাস্তের সৌন্দর্য নষ্ট করে)।
  • আবেদনপত্র/দরখাস্তের উপর কোন কাঁটাছেড়া লেখা থাকা উচিত নয়।
  • বানানের প্রতি বিশেষ মনোযোগ দিন। বানান অবশ্যই ভুল করবেন না।
  • অনুগ্রহ করে দরখাস্ত/আবেদনে অপ্রয়োজনীয় শব্দ লিখবেন না। মূল সমস্যাটি সংক্ষিপ্ত করার চেষ্টা করুন।
  • স্পষ্ট ও সহজ ভাষায় দরখাস্ত/আবেদনপত্র লিখুন, যাতে যে কেউ সহজেই পড়তে পারে। কারণ এই ধরনের পত্রে অগোছালো লেখাকে প্রাধান্য কম দেয়া হয়।

শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য আবেদন লেখার নিয়ম

তারিখঃ- ২৮-০৬-২০–

বরাবর,

মাননীয় প্রধান শিক্ষক

আপনার বিদ্যালয়ের নাম লিখুন

থানার নাম, জেলার নাম

 

বিষয়: শিক্ষাসফরে যাওয়ার জন্য বা প্রেরণের জন্য আবেদন।

 

মহোদয়,

সবিনয় নিবেদন এই যে, আমরা আপনার বিদ্যালয়ের (আপনি কোন ক্লাসে পড়েন তা লিখুন) শ্রেণির শিক্ষার্থী। প্রতি বছর এই বিদ্যালয়ের (আপনি কোন ক্লাসে পড়েন তা লিখুন) শ্রেণির শিক্ষার্থীরা শিক্ষাসফরে গিয়ে থাকে। কিন্তু এ বছর এখনো তার কোনো উদ্যোগ গৃহীত হয়নি। ছাত্রজীবনে শিক্ষাসফরের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। শিক্ষাসফরের ফলে ব্যবহারিক শিক্ষার সঙ্গে বাস্তব জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা আরও সমৃদ্ধ হয়। যেকোনো ভ্রমণেই দেশ ও দেশের মানুষকে ভালোভাবে জানার সুযোগ হয়।

 

আমরা এবার শিক্ষাসফরে (কোন বিভাগ বা জেলায় যাবেন তার বিস্তারিত বলুন) যাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করছি। (সেই বিভাগ বা জেলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি তুলে ধরুন) ইত্যাদিও আমাদের আগ্রহের কেন্দ্রে রয়েছে। এসব স্থান ও স্থাপনা দর্শন করে আমরা বিশেষ জ্ঞান অর্জন করতে সক্ষম হব।

 

একদিনের এই সফরের সম্পূর্ণ ব্যয়ভার আমরা বহন করব। আমাদের সঙ্গে দুজন সিনিয়র শিক্ষক যেতে রাজি হয়েছেন। আপনার সম্মতি পেলে শিক্ষাসফরে যাওয়ার দিন ধার্য করে আমরা আমাদের অভিভাবকদের অনুমতি গ্রহণ করব।

 

অতএব, মহোদয়ের কাছে বিনীত আবেদন, আমাদের শিক্ষাসফরে যাওয়ার সদয় অনুমতি দিয়ে এবং বিভাগ বা জেলার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা লাভের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করে বাধিত করবেন।

 

বিনীত নিবেদক,

(আপনার নাম লিখুন)

(আপনার শ্রেণী লিখুন)

রোল – ….

 

আপনার সমস্যার উপর নির্ভর করে, আপনি উপরের উদাহরণটি দেখে প্রধান শিক্ষককে একটি অনুরোধ পত্র লিখতে পারেন। এছাড়াও আপনি যদি আমাদের আবেদন ফর্মটি হুবহু কপি করে নেন, তাহলে আপনার সমস্যা হতে পারে। এই কারণে, এখানে নমুনা পত্রের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষককে আপনার নিজের অনুরোধ পত্র লিখুন।

আরও পড়ুন – প্রধান শিক্ষককে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করার জন্য আবেদনপত্র

Similar Posts