আল্লাহর পছন্দের মেয়েদের নাম গুলো জেনে নিন আজকে।

আল্লাহর পছন্দের মেয়েদের নাম

আল্লাহর পছন্দের মেয়েদের নাম জানতে অনেকেই গুগল এ সার্চ করেন আজকের পোস্টটি তাদের জন্য। ইসলামি শরিয়তে আপনার সন্তানের একটি সুন্দর এবং অর্থপূর্ণ নাম রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পরিবার থেকে সুন্দর নাম পাওয়া শিশুর অধিকার। আল্লাহর রসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব ও মনোযোগ দিতে বলেছেন। তিনি আদেশ দেন যে, সন্তানের জন্মের সপ্তম দিনে নবজাতকের একটি ভাল এবং সুন্দর অর্থ সহ একটি নাম রাখতে হবে। (তিরমিজি, হাদিস, ২/১১০)

মুসলিম শিশুর নাম বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে অর্থপূর্ণ নাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই ক্ষেত্রে, ছেলে এবং মেয়েদের নামের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পার্থক্য আছে। উদাহরণস্বরূপ, একটি মেয়ের নামের অর্থ সৌন্দর্য, নমনীয়তা, ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত থাকে। আপনার শিশুর জন্য ভালো অর্থপূর্ণ নাম ভাবতে সমস্যায় পড়ছেন? এখানে বাচ্চা মেয়েদের জন্য কিছু দুর্দান্ত সুন্দর অর্থপূর্ণ নাম রয়েছে।

মেয়েদের জন্য আল্লাহর পছন্দের নামগুলো হল আল্লাহর গুণাবলী, সৃষ্টির সৌন্দর্য, ভালোবাসা, দয়া, অনুগ্রহ ইত্যাদি প্রকাশ করে। এই নামের অর্থগুলিও সুন্দর এবং বিস্ময়কর। আপনি কি আল্লাহর পছন্দ অনুযায়ী আপনার মেয়ের নাম রাখতে চান, নাকি আপনার নবজাতকের নাম কুরআন অনুযায়ী রাখতে চান? তাহলে এই পোস্ট থেকে আল্লাহর প্রিয় মেয়েদের নামের বিস্তারিত জেনে নিন।

আল্লাহর পছন্দের মেয়েদের নাম

  • আলিয়া = নিঃশ্বাস ফেলা
  • আবিদা = উপাসক
  • আলা = অনুগ্রহ
  • আলিমা = পণ্ডিত; জ্ঞানযোগ্য
  • আলিনা = স্বর্গের সিল্ক, নরম, সূক্ষ্ম
  • আমনা = বিশ্বস্ত; বিশ্বাস করা
  • আমানি = শুভ কামনা
  • আমিনা = বিশ্বস্ত, অনুগত
  • অহমিনা = যে নিরাপদ
  • আনিসা = যে অন্যদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ এবং নম্র
  • আনিয়া = যত্নশীল, প্রেমময়
  • আসিয়া = চিন্তাশীল, কাতর
  • আসমা = আকাশ-উচ্চ, উচ্চবিত্ত
  • আইদাহ = অসুস্থদের দর্শনার্থী; যে ফিরে আসে
  • আয়েশা = জীবন, জীবিত (নবীর স্ত্রী)
  • আমিরা = রাজকুমারী
  • আকিলা = বুদ্ধিমান, জ্ঞানী
  • আজ্জা = তরুণ গজেল
  • আয়া = কোরানের আয়াত; ঈশ্বরের অস্তিত্বের চিহ্ন
  • আলিয়া = উচ্চ
  • আলিয়া = পবিত্র, অসাধারণ
  • আরজু = ইচ্ছা
  • আসিয়া = যে সাহায্য করে
  • আসমা = আকাশ, অসাধারণ
  • আয়াত = কোরানের বাণী
  • আফরীন = উৎসাহ
  • আলমাস = হীরে
  • আমিরা = রাজনন্দিনী
  • আমিনা = বিশ্বস্ত
  • আমায়রা = নেতৃ, রাজকুমারী
  • আইদাহ = অসুস্থকে দেখতে গিয়েছে যে, ফিরিয়ে আনা
  • আয়েশা = জীবন্ত
  • বাহার = শরৎ
  • বেনজির = যার কোনও নজির নেই
  • বুশরা = সুসংবাদ
  • দিলশাদ = আনন্দিত
  • দিনায়াহ = ধর্ম
  • ইরাম = স্বর্গ
  • ইশাল = উৎসাহিত
  • ফয়জা = জয়
  • ফারাহ = আনন্দ
  • ফাতিমা = হজরতের পুত্রী
  • ফিলজা = অত্যন্ত প্রিয়
  • ফিরোজা = একটি রঙ
  • ফিজা = মৃদু বাতাস
  • গৌহর = মুক্তো
  • গাজালা = সূর্যোদয়ের ঠিক পরের সময়
  • হায়া = নম্রতা
  • হসিনা = সুন্দর
  • হীনা = মেহেন্দি
  • হুমা = স্বর্গের পাখি
  • হুমায়রাহ = যাঁর গাল লাল
  • ইবাদত = উপাসনা, ভকত্তি
  • ইনারা = আলোক রশ্মি, স্বর্গ থেকে পাঠানো
  • ইকরা = আবৃত্তি করা
  • জাহান = পৃথিবী
  • জাহিদা = স্বর্গ
  • জামিলা = সুন্দর
  • কাহকাশান = ব্রহ্মাণ্ড
  • কলিমা = বক্তা, বলা কথা
  • খাদিজা = হজরত মোহম্মদের স্ত্রীর নাম
  • লাইলাহ = রাত্রি
  • লতিফা = ভদ্র, সহৃদয়
  • লুবনা = যে গাছ সুগন্ধী রেসিন দেয়
  • মাহিরা = দক্ষ
  • মন্নত = ইচ্ছা
  • মেহের = দয়া
  • মুসার্রত = আনন্দ
  • নাজ = গর্ব
  • নাদিরা = বিরল
  • নফিসা = মূল্যবান
  • নাগমা = গান
  • নায়রা = উজ্জ্বল, চকচকে
  • নার্গিস = ফুল
  • নাসরীন = বন্য গোলাপ
  • নৌশীন = সমর্থনযোগ্য
  • নূর = ঐশ্বরিক আলো
  • ওরজালা = আগুনের ঔজ্জ্বল্য
  • পাকিজা = শুদ্ধ
  • পরবীনা = উজ্জ্বল তারা
  • কাহিরা = জয়ী
  • কাইলাহ = যে কথা বলে
  • কায়সার = সুন্দর আবৃত্তি
  • রফিকা = দয়ালু, ভদ্র সঙ্গী
  • রাহিলা = যাত্রী
  • রিহানা = মিষ্টি তুলসী
  • সাবিনা = সুন্দর
  • সাবিরা = ধৈর্যশীল
  • সায়রা = যাত্রী
  • সলমা = নিরাপদ
  • সামায়রা = ভালো বন্ধু
  • সানা = জ্ঞানী
  • সাহানা = আভিজাত্য
  • সানিয়া = উজ্জ্বল
  • শাহীন = ম্যাগনিফিশিয়েন্ট
  • শাজিয়া = মূল্যবান
  • শিফা = সেরে ওঠা
  • সোহা = তারা
  • সুরায়া = তারার সমষ্ঠি
  • সুমাইয়া = শুদ্ধ
  • তাহিরা = শুদ্ধ, পাপ মুক্ত
  • তমান্না = আকাঙ্খা
  • তেহজীব = ভালো ব্যবহার যাঁর
  • উমাইরা = অনুপ্রেরণামূলক
  • উরশিয়া = আকাশের সঙ্গে সম্পর্ক যাঁর
  • উজমা = শ্রেষ্ঠতম
  • উরওয়াহ = সদাবাহার গাছ
  • বরদাহ = গোলাপ
  • ওয়াহিদা = অভিনব
  • ইয়ামিনা = আশীর্বাদ প্রাপ্ত
  • ইয়েলদা = জ্যাসমিন ফুল
  • জাহরা = চকচকে
  • জৈনব = সুগন্ধী গাছ
  • জারা = রাজকুমারী
  • জরিনা = সোনালী
  • জিবা = সুন্দর
  • জোয়া = ভালোবাসে ও যত্ন করে যে

বিশেষ দ্রষ্টব্য: আপনার মেয়ের নাম রাখার জন্য আপনি আপনার স্থানীয় মসজিদের ইমাম সাহেবের সাথে পরামর্শ করতে পারেন অথবা আপনি একজন ধার্মিক ও সম্মানিত ব্যক্তির সাথে পরামর্শ করতে পারেন।

এখানে অর্থ সহ আল্লাহর পছন্দের মেয়েদের নাম এর একটি তালিকা দেওয়া আছে। এখান থেকে, আমরা আশা করি আপনি আপনার মূল্যবান শিশুর জন্য আপনার প্রিয় নামটি বেছে নেবেন। এছাড়াও, পোস্টটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন। ধন্যবাদ

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *